ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে কীভাবে ডিপোজিট করবেন?

ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে ডিপোজিট করতে এই সহজ গাইডগুলো ধাপে ধাপে দেখুন।

ধাপ ১
আপনার Baji অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন, ‘ডিপোজিট’ সিলেক্ট করুন।



ধাপ ২
আপনি যদি কোনও প্রমোশনাল অফারে অংশ নিতে চান, তবে অফারগুলির মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করতে পারেন, অন্যথায় আমাদের সেটিংস এ ডিফল্ট হিসাবে ‘Normal’ সেট করা থাকবে। আপনার অফার সিলেক্ট করা সম্পন্ন হলে, আমাদের স্ক্রিনে ঐ অফারের জন্য এভেইল্যাবল ডিপোজিট চ্যানেলগুলি প্রদর্শন করবে।



ধাপ ৩
‘লোকাল ব্যাংক’ এ ক্লিক করুন এবং ডিপোজিট চ্যানেলটি সিলেক্ট করুন।



ধাপ ৪

আপনি আমাদের কোম্পানির তথ্য যেমন অ্যাকাউন্ট নম্বর এবং অ্যাকাউন্টের নাম দেখতে পাবেন। সফলভাবে টাকা ট্রান্সফার করতে আপনাকে আপনার অনলাইন ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে লগইন করতে হবে। অনুগ্রহপূর্বক মনে রাখবেন যে, বিভিন্ন ব্যাংকের জন্য টাকা ট্রান্সফার করার পদ্ধতি ভিন্ন ভিন্ন।

উদাহরণস্বরূপ: ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে ডিপোজিট প্রক্রিয়া
ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে কিভাবে ডিপোজিট করতে হয় তা জানতে, নীচের ভিডিওটি দেখুন!

স্পিড ডিপোজিট বাটনে ক্লিক করে আপনার কাঙ্ক্ষিত ডিপোজিট এমাউন্ট বসান।

এই স্পিড ডিপোজিট বাটন আপনাকে খুবই তারাতারি ডিপোজিট এমাউন্ট সিলেক্ট করতে সহায়তা করবে, আপনার কাঙ্ক্ষিত ডিপজিট এমাউন্টের পরিমান বাড়াতে আপনি একই এমাউন্টের বাটনে ক্লিক করতে পারেন। নিচের ঘরে আপনার টোটাল ডিপোজিটের পরিমান দেখা যাবে, আপনার ডিপোজিট এমাউন্ট কনফার্ম করতে “পরবর্তী” ক্লিক করুন।
উদাহরনস্বরুপঃ ১০,০০০ টাকা লিখা বাটনের উপর ২ বার ক্লিক করে টোটাল ডিপোজিট এমাউন্ট ২০,০০০ টাকা করা যাবে।



ধাপ ৫

আপনার ফুল অ্যাকাউন্ট নেম লিখুন। আপনার ট্রানজেকশন আইডি বা রেফারেন্স নং দিয়ে ডিপোজিট ফর্মটি পূরণ করুন তারপর, ‘আপলোড রিসিট’ বাটনটি ক্লিক করে লেনদেনের স্লিপ আপলোড করুন।

নোটঃ অনুগ্রহপূর্বক নিশ্চিত করুন যে আপনার ব্যাংক একাউন্টের নাম এবং আপনার Baji একাউন্টের রেজিস্টার করা নাম যেন একই হয় সে বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করবেন, অন্য কোনো থার্ড পার্টি ব্যাংক একাউন্ট থেকে ডিপোজিট করা হলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।

আপনি আমাদের কোম্পানির তথ্য যেমন অ্যাকাউন্ট নম্বর এবং অ্যাকাউন্টের নাম দেখতে পাবেন। সফলভাবে টাকা ট্রান্সফার করতে আপনাকে আপনার অনলাইন ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে লগইন করতে হবে। অনুগ্রহপূর্বক মনে রাখবেন যে, বিভিন্ন ব্যাংকের জন্য টাকা ট্রান্সফার করার পদ্ধতি ভিন্ন ভিন্ন।

উদাহরণস্বরূপ: ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে ডিপোজিট প্রক্রিয়া
ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে কিভাবে ডিপোজিট করতে হয় তা জানতে, নীচের ভিডিওটি দেখুন!



ধাপ ৬:

স্পিড ডিপোজিট বাটনে ক্লিক করে আপনার কাঙ্ক্ষিত ডিপোজিট এমাউন্ট বসান।

এই স্পিড ডিপোজিট বাটন আপনাকে খুবই তারাতারি ডিপোজিট এমাউন্ট সিলেক্ট করতে সহায়তা করবে, আপনার কাঙ্ক্ষিত ডিপজিট এমাউন্টের পরিমান বাড়াতে আপনি একই এমাউন্টের বাটনে ক্লিক করতে পারেন। নিচের ঘরে আপনার টোটাল ডিপোজিটের পরিমান দেখা যাবে। উদাহরনস্বরুপঃ ১০,০০০ টাকা লিখা বাটনের উপর ২ বার ক্লিক করে টোটাল ডিপোজিট এমাউন্ট ২০,০০০ টাকা করা যাবে।

আপনার ফুল অ্যাকাউন্ট নেম এবং ট্রানজেকশন আইডি বা রেফারেন্স নং দিয়ে ডিপোজিট ফর্মটি পূরণ করুন তারপর, ‘Choose Files’ বাটনটি ক্লিক করে লেনদেনের স্লিপ আপলোড করুন।

নোটঃ অনুগ্রহপূর্বক নিশ্চিত করুন যে আপনার ব্যাংক একাউন্টের নাম এবং আপনার Baji একাউন্টের রেজিস্টার করা নাম যেন একই হয় সে বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করবেন, অন্য কোনো থার্ড পার্টি ব্যাংক একাউন্ট থেকে ডিপোজিট করা হলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।



ধাপ ৭:
“ডিপোজিট” বাটনে ক্লিক করুন এবং আপনি একটি নোটিফিকেশন পাবেন যে আপনার ডিপোজিটটি প্রাপ্ত হয়েছে এবং প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আপনার ডিপোজিট সফল হওয়ার পর ব্যলেন্স আপডেট করা হবে।
‘সাবমিট করুন’ বাটনে ক্লিক করুন এবং আপনি একটি নোটিফিকেশন পাবেন যে আপনার ডিপোজিটটি প্রাপ্ত হয়েছে এবং প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আপনার ডিপোজিট সফল হওয়ার পর আপডেট করা হবে।


নোট:

  1. প্রতিবার ডিপোজিট করার আগে অনুগ্রহ করে আমাদের একাউন্ট নম্বরগুলি ভালোভাবে চেক করে নিন কারণ সময়ের সাথে সাথে এই নম্বরগুলি পরিবর্তিত হতে পারে।
  2. বিভিন্ন ডিপোজিট চ্যানেলের ন্যূনতম এবং সর্বাধিক ডিপোজিট এমাউন্ট ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে।
  3. অনুগ্রহপূর্বক নিশ্চিত করুন যে ট্রান্সফার করা এমাউন্ট এবং আপনার ডিপোজিটের জন্য রিকোয়েস্টকৃত এমাউন্ট দুইটি সমান। ভুল তথ্য প্রদানের কারণে আপনার কোনও ফান্ড মিসিং হলে Baji কতৃপক্ষ তার জন্য দায়বদ্ধ থাকবে না।

 

আরও তথ্যের জন্য নীচের ভিডিওটি দেখুন!

6731cookie-checkব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে কীভাবে ডিপোজিট করবেন?